1. [email protected] : Md. Abdullah Al Mamun : Md. Abdullah Al Mamun
  2. [email protected] : admin : admin
  3. [email protected] : Shamsul Akram : Shamsul Akram
  4. [email protected] : Mohammad Anas : Mohammad Anas
  5. [email protected] : Rabiul Azam : Rabiul Azam
  6. [email protected] : Imran Khan : Imran Khan
  7. [email protected] : Jannatul Ferdous : Jannatul Ferdous
  8. [email protected] : Juwel Rana : Juwel Rana
  9. [email protected] : K M Khalid Shifullah : K M Khalid Shifullah
  10. [email protected] : Md. Mahbubur Rahman : Md. Mahbubur Rahman
  11. [email protected] : Shoyaib Forhad : Shoyaib Forhad
  12. [email protected] : Mijanur Rahman : Mijanur Rahman
  13. [email protected] : Mohoshin Reza : Mohoshin Reza
  14. [email protected] : Noman Chowdhury : Noman Chowdhury
  15. [email protected] : Md. Rakibul Islam : Md. Rakibul Islam
  16. [email protected] : Rasel Mia : Rasel Mia
  17. [email protected] : Rayhan Hossain : Rayhan Hossain
  18. [email protected] : Md. Sabbir Ahamed : Md. Sabbir Ahamed
  19. [email protected] : Abdus Salam : Abdus Salam
  20. [email protected] : Shariful Islam : Shariful Islam
  21. [email protected] : BN Support : BN Support
  22. [email protected] : Suraiya Nasrin : Suraiya Nasrin
  23. [email protected] : Aftab Wafy : Aftab Wafy
নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে উন্নয়নশীল বিশ্বে বাংলাদেশ রোল মডেল: স্পিকার - BDTone24.com
বৃহস্পতিবার, ০৬:৫৪ পূর্বাহ্ন, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ইং, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ বাংলা

নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে উন্নয়নশীল বিশ্বে বাংলাদেশ রোল মডেল: স্পিকার

কে এম খালিদ সাইফুল্লাহ
  • সময় বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে উন্নয়নশীল বিশ্বে বাংলাদেশ রোল মডেল।
ইউএন ওমেন সদর দপ্তরে ইউএন ওমেনের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক অনিতা ভাটিয়া ও অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠককালে স্পিকার আজ একথা বলেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ইউএনওমেন এর প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই তিনি এর কার্যক্রমের সাথে নানানভাবে সম্পৃক্ত রয়েছেন। নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিতকরণে নিবেদিত ইউএনওমেন এর কার্যক্রমের প্রতি তাই তার বিশেষ আগ্রহ রয়েছে।
অনিতা ভাটিয়া ইউএনওমেন সদর দপ্তরে স্পিকারকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, নারীর সার্বিক উন্নয়নে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর বিশেষ আগ্রহ ও মনোযোগ সম্পর্কে ইউএনওমেন সম্যক অবগত আছে।

স্পিকার বলেন, পার্লামেন্ট রাষ্ট্রের সকল কর্মকান্ডের কেন্দ্রবিন্দু। রাষ্ট্র পরিচালনা এবং উন্নয়ন ও জনস্বার্থ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সময়োপযোগী আইন প্রণয়ন সংসদের প্রধান কাজ। কিন্তু সমকালীন বিশ্বে আইন প্রণয়নের বাইরেও পার্লামেন্টের ভূমিকা ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে। সমকালীন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু যেমন জলবায়ু পরিবর্তন, জেন্ডার সমতা নিশ্চিতকরণ, জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতাসহ সকল প্রকার সহিংসতা নির্মূল, দারিদ্র্য বিমোচনসহ গণতন্ত্র শক্তিশালীকরণে পার্লামেন্টের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। এসব ক্ষেত্রে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছ বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ইউএন ওমেনের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক বলেন, বাংলাদেশ সার্বিকভাবে নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বে অনুকরনীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। বিশেষ করে নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের গৃহীত নানান পদক্ষেপ প্রশংসনীয়। বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের মাধ্যমে ইউএনওমেন বাংলাদেশে জেন্ডার সমতা নিশ্চিত করনে কাজ করতে আগ্রহী বলে তিনি জানান। সেই লক্ষ্যে সংসদ সদস্যগণের সমন্বয়ে নারী উন্নয়ন বিষয়ক সর্বদলীয় পার্লামেন্টারি গ্রুপ গঠন করতে ইউএন ওমেন কারিগরী সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত বলে তিনি উল্লেখ করেন।

স্পিকার বাংলাদেশে জনসংখ্যা ও উন্নয়ন ইস্যূতে সংসদ সদস্যগণের সম্পৃক্ততা জোরালো করার জন্য বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব পার্লামেন্টারিয়ানস অন পপুলেশন এন্ড ডেভলপমেন্ট- বিএপিপিডি গঠনের বিষয় উল্লেখ করেন তিনি বলেন, বিএপিপিডি অত্যন্ত  নিষ্ঠা ও সাফল্যের সাথে কাজ করে যাচ্ছে। নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিগণ নারী, শিশু ও যুব সমাজের কল্যাণ ও সমৃদ্ধির লক্ষ্যে শুধুমাত্র আইন প্রণয়ণেই সীমাবদ্ধ না থেকে জাতীয় সংসদের স্পিকারের নেতৃত্বে বিএপিপিডি’র আওতায় ‘বাল্যবিয়ে ও জেন্ডার ভিক্তিক সহিংসতা প্রতিরোধ; ’মাতৃস্বাস্থ্য উন্নয়ন, নিরাপদ প্রসব নিশ্চিতকরণ ও পরিবার পরিকল্পনা; এবং ‘জনসংখ্যার বহুমাত্রিকতা ও যুব উন্নয়ন- এ তিনটি ইস্যূতে আইনের সঠিক প্রয়োগ নিশ্চিত করাসহ মাঠ পর্যায়ে ব্যাপক জনসচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছেন।

স্পিকার বলেন, এক্ষেত্রে জনগণের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য সংসদ সদস্যগণ যার যার নির্বাচনী এলাকাসহ প্রত্যন্ত  অঞ্চলের সাথে সংযোগ স্থাপন করে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন। এক্ষেত্রে ইউএনএফপিএ কারিগরী সহযোগিতা প্রদান করে আসছে। বিএপিপিডি’র আদলে নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়ন জোরালোকরণসহ জেন্ডার সমতা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে সংসদীয় গ্রুপ গঠন করার বিষয়ে তিনি  আগ্রহ প্রকাশ করেন। এক্ষেত্রে ইউএন ওমেন কর্তৃক কারিগরী সহযোগিতা প্রদানের সিদ্ধান্তকে তিনি স্বাগত জানান।

ইউএন ওমেনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এই গ্রুপ নারীর সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে জেন্ডার সমতা অর্জনের পথে যে বাধাগুলো আছে তা চিহ্নিত করবে এবং সেসব বাধা দূরীকরণে সচেতনতা জোরদার করবে। সমকালীন বিশ্বে জলবায়ুর পরিবর্তনজনিত যে সমস্যাগুলোর উদ্ভব হচ্ছে, তা নারীকে কিভাবে এফেক্ট করছে, তাও বিভিন্ন পর্যায়ে পর্যালোচনা করা হচ্ছে।
স্পিকার বলেন, জলবায়ুর পরিবর্তনজনিত সংকটে নারী বিশেষভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। পরিবেশ সংরক্ষণে নারীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধি করতে পারলে সাফল্য আসবে। এ প্রসঙ্গে উদাহরণ টেনে স্পিকার বলেন, নদী কিংবা জলাশয়ের পানি নানান কাজে নারীরা ব্যবহার করে। তাদের মধ্যে এই পানি সুরক্ষার বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে পারলে পানি দূষণ কমানো সম্ভব হবে।

ইউএনওমেনের পক্ষ থেকে বলা হয়, পারিবারিক মজুরিবিহীন শ্রমে নারীর অবদান আড়ালে থেকে যাচ্ছে। নারীর সেই কাজের অর্থনৈতিক মূল্য কিংবা জিডিপিতে সেই শ্রমের অবদান কতদূর, তা নির্ধারণ করা যাচ্ছে না। সেটা কিভাবে নির্ধারণ করা যায় তা নিয়ে ইউএনওমেন কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশেও এবিষয়ে বাংলাদেশ ব্যুরো অব স্ট্যাটিটিকস্- বিবিএস এর সাথে তারা কাজ করছে। এ বিষয়ে জাতীয় সংসদ সদস্যগণের সহযোগিতা কামনা করেন।
স্পিকার বলেন, পারিবারিক কাজে নারীর এই অবদান সমগ্র বিশ্বেই আড়ালে থেকে যাচ্ছে। সমাজের অর্ধেক জনগোষ্ঠীর এই অবদানকে অবজ্ঞা করার সুযোগ নেই। তিনি বলেন, করোনা অতিমারিতেও নারী বিশেষভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। নারীকে এই অবস্থা থেকে উত্তরণে বিশ্বের সবাইকে এক যোগে কাজ করতে হবে। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের উদাহরণ টেনে স্পিকার বলেন, করোনা অতিমারিতে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে সুরক্ষায় সরকার সরাসরি নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করেছে। এই  উপকারভোগীদের একটি বড় অংশ নারী। তাছাড়া স্কুলে বালিকাদের স্টাইপেন্ড প্রদান করা হচ্ছে। উক্ত স্টাইপেন্ডের অর্থ মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে তাদের কাছে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। তারা যাতে এই কর্মসূচির পূর্ণ সুফল পেতে পারে সেই লক্ষ্যে তাদের মোবাইল সেটও কিনে দেয়া হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গৃহীত এইসব পদক্ষেপের ফলে করোনা অতিমারির অভিঘাতও বাংলাদেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠী অতিক্রম করতে পেরেছে।

ইউএনওমেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এইসব পদক্ষেপের প্রশংসা করে জানায় তিনি বিশ্বে নারী উন্নয়নের রোল মডেল। তারা বিশ্বের বিভিন্ন উন্নয়নশীল দেশের সামনে সব সময়ই বাংলাদেশের উদাহরণ উপস্থাপন করে থাকেন, যাতে তারাও বাংলাদেশের পদাংক অনুসরণ করতে উৎসাহী হয়।
বৈঠকে ইউএনওমেনের পক্ষ থেকে চীফ অব রিসার্চ এন্ড ডাটা মি. পাপা সেক, প্রোগ্রাম এনালিস্ট-ইউরোপ এন্ড সেন্ট্রাল এশিয়া আনুচকা দায়বাল, রিজিওনাল এডভাইজার ফর গভার্নেন্স, পিচ এন্ড সিকিউরিটি  সাবিন ফ্রেইজার, ডিরেক্টর- স্ট্রেটেজিক পার্টনারশিপ ডেনিয়েল সেইমর উপস্থিত থেকে আলোচনায় অংশ নেন।
বৈঠকে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের যুগ্মসচিব এম.এ কামাল বিল্লাহ, জাতিসংঘে বাংলাদেশের ডেপুটি পিআর  মনোয়ার হোসেন ও কাউন্সিলর  শাহানারা মনিকা উপস্থিত ছিলেন।

খবরটি শেয়ার করুন। শেয়ার অপশন না পেলে ব্রাউজারের এডব্লকার বন্ধ করুন।

এই ধরনের আরো খবর
sadeaholade
বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত নিবন্ধন নম্বর: আবেদনকৃত । © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । ওয়েবসাইটের কোন কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার নিষিদ্ধ।
themesbazarbdtone247